Home লাইফ স্টাইল শুক্রাচার্যের নীতি মোতাবেক সুখে থাকতে এই ছটি বিষয় কখনও প্রকাশ্যে আনবেন না!

শুক্রাচার্যের নীতি মোতাবেক সুখে থাকতে এই ছটি বিষয় কখনও প্রকাশ্যে আনবেন না!

SHARE

নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ফলাও করে কাউকে কিছু বলবেন না৷ তাহলেই আপনার জীবনে বিপদ আসন্ন৷ বহুকাল আগে শুক্রাচার্য এমনই এক নীতির উল্লেখ করেন৷ সেই নীতিতেই রয়েছে বেশ কিছু বিষয়ের উল্লেখ৷ যেগুলি মেনে না চললেই আপনার জীবনে বিপদ আসবেই৷ কেউ রুখতে পারবেনা সেই বিপদ৷  শুক্রাচার্য শুধুমাত্র একজন বিখ্যাত স্কলারই ছিলেন না৷ এর পাশাপাশিই তিনি ছিলেন একজন বুদ্ধিদীপ্ত মানুষও৷ তাঁর লেখা এই নীতিগুলি হল-

১) সবসময় সবাইকে সম্মান দেবেন৷ তাহলে আপনিও সেই সম্মান পাবেনই৷ সবাইকে ভালোবাসাও উচিত এবং সম্মান দেওয়া উচিত৷ কিন্তু সেটি প্রয়োজনের তুলনায় বেশি প্রকাশ করবেন না৷

২) জীবনে কখনও কোনও সময় কোনও ব্যক্তির দ্বারা অসম্মান হন কিংবা অপমানিত হন৷ তাহলে সেই বিষয়টির ব্যপারে প্রকাশ করবেন না৷ ওই বিষয়টি নিজের মধ্যেই রাখুন৷ এই অপমানিত হওয়ার কথা যদি অনেককে বলেন তাহলে একইভাবে বাকিদের কাছেও আপনি অসম্মানিত হবেন৷

৩) নিজের স্বপ্নপূরণের জন্য সকলেই কোনও কোনও ঠাকুরকে বিশ্বাস করেন৷ আর সেই বিশ্বাস করার পিছনে থাকে বিশেষ একটি মন্ত্রও৷ সেই বিশেষ মন্ত্রটি পাঠ করেই ঠাকুরের কাছে নিজের ইচ্ছের কথা সকলে জানান৷ সেক্ষেত্রে এই পুরো বিষয়টিই গোপন রাখা উচিত কারণ এই বিষয়টি প্রকাশ্যে এলে ভেস্তে যেতে পারে আপনার স্বপ্ন৷

৪) যদি কোনওভাবে কোথাও থেকে প্রচুর টাকা রোজগার করেন আপনি৷ তাহলে সেটি গোপন রাখুন৷ নাহলে সেই টাকাও আপনার পকেট থেকে হারিয়ে যেতে পারে৷ চুরি হয়ে বা অন্য কোনওভাবে৷

৫) আপনার বয়স কখনই সমস্ত কিছু ঠিক করে দিতে পারেনা৷ কিন্তু আপনার বয়সটি গোপন রাখাই আপনার জন্য ভালো৷ আর তা নাহলে আপনাকে কাজের ক্ষেত্রে অনেকরকম সমস্যায় পড়তে হতেই পারে৷

৬) আপনার জীবনসঙ্গীর সঙ্গে যেসমস্ত কথা হয়ে থাকে সেই বিষয়গুলি গোপন রাখুন৷ তা নাহলেই গভীর সমস্যায় পড়তে পারেন আপনারা দু’জনেই৷