Home আইন ও আদালত দলিল লেখকদের ৬৫ বছরের বয়সসীমা বিলুপ্তির অনুমোদন

দলিল লেখকদের ৬৫ বছরের বয়সসীমা বিলুপ্তির অনুমোদন

SHARE

দলিল লেখকদের ৬৫ বছরের বয়সসীমা বিলুপ্তির নথিতে অনুমোদন দিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। আজ বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে।
আইন মন্ত্রনালয় জানিয়েছে, ২০১৭ সালের ৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ দলিল লেখক সমিতির কাউন্সিল অধিবেশনে মন্ত্রী আনিসুল হকের প্রতিশ্রুতির পরিপ্রেক্ষিতে এখন থেকে ৬৫ বছর বয়সের পরেও দলিল লিখতে পারবেন সনদধারী দলিল লেখকরা। তাদের ৬৫ বছরের সর্বোচ্চ বয়সসীমা বিলুপ্তকরণ সংক্রান্ত নথিতে অনুমোদন দিয়েছেন আইনমন্ত্রী। এখন আইন মন্ত্রণালয়ের অধীন নিবন্ধন অধিদপ্তর এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করবে।
নিবন্ধন সনদ পাওয়ার জন্য ২০০৩ সালের পূর্বে দলিল লেখকদের বয়সসীমা এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার শর্ত ছিল না। ২০০৩ সালে জারিকৃত এক পরিপত্রের মাধ্যমে তাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৬৫ বছরের শর্ত আরোপ করা হয়।
এতে করে ৬৫ বছরের পর অনেক দলিল লেখক বেকার হয়ে যায়। ফলে তারা ৬৫ বছরের সর্বোচ্চ বয়সসীমা বিলুপ্ত করার দাবী জানিয়ে আসছিলেন।