Home প্রিয় চট্টগ্রাম লাখো জনতার ভালোবাসায় চিরবিদায়

লাখো জনতার ভালোবাসায় চিরবিদায়

SHARE

চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক লালদিঘীর ময়দান। দেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন, সংগ্রামে এই লালদিঘীর ময়দানে হুঙ্কার ছেড়ে কর্মসূচি দিয়েছেন এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী।

মহিউদ্দিনের নির্দেশে কত শতবার চট্টগ্রাম অচল হয়েছে। দাবি আদায় হয়েছে। স্বৈরাচার সরকারকেও এই লালদিঘীর ময়দানে দাঁড়িয়ে চট্টগ্রামে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছিলেন মহিউদ্দিন। সেই লালদিঘীর ময়দানে লাখো জনতা সমবেত হয়ে চোখের জলে চিরবিদায় জানিয়েছেন এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে।

শুক্রবার বাদ আসর মহিউদ্দিন চৌধুরীর লালদিঘীর ময়দানে নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজায় ইমামতি করেন মাওলানা আনিসুজ্জামান। জানাজা শুরুর আগে একজন অকুতোভয় মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে মহিউদ্দিন চৌধুরীকে জানানো হয় রাষ্ট্রীয় সম্মান গার্ড অব অনার।

এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নামাজে জানাজায় সমগ্র চট্টগ্রাম জেলা, মহানগরী এবং দেশের বিভিন্নপ্রান্ত থেকে লক্ষাধিক মানুষ অংশ নিয়েছেন। দল-মত নির্বিশেষ বিভিন্ন দলের নেতারা জানাজায় শরিক হন। জানাজা শেষে দীর্ঘ দিনের রাজনৈতিক নেতা, অভিভাবকের শেষ বিদায়ের কান্নায় ভেঙে পড়েন বহু মানুষ।

এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর জানাজায় অংশ নিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, পানিসম্পদ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি, ফজলে করিম এমপি, বরিশাল-১ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, চট্টগ্রামের সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির নেতা জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, সংসদ সদস্য ডা. আফসারুল আমীন, নজরুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ ছালাম, সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক, দৈনিক পূর্বকোণের সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরীসহ চট্টগ্রামের অসংখ্য মানুষ।

জানাজার নামাজ শেষে মহিউদ্দিন চৌধুরীর মরদেহ নিয়ে আসা হয় চট্টগ্রাম নগরীর দুই নম্বর গেটের মেয়র গলির চশমা হিলের বাসভবনে। সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে মহিউদ্দিন চৌধুরীকে চির নিদ্রায় শায়িত করা হয়।