Home অর্থনীতি আয়কর পরিচয়পত্রের মেধাসত্ত্ব স্বীকৃতি পেলো এনবিআর

আয়কর পরিচয়পত্রের মেধাসত্ত্ব স্বীকৃতি পেলো এনবিআর

SHARE

করদাতাদের সম্মাননা দিতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) উদ্ভাবন ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ড বা আয়কর পরিচয়পত্র কপিরাইট বা মেধাসত্ত্ব স্বীকৃতি পেয়েছে।
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কপিরাইট অফিস এ স্বীকৃতি দিয়েছে।দেশে প্রথমবারের মত কোন সরকারি অফিস উদ্ভাবনের জন্য এমন স্বীকৃতি পেলো।
বৃহস্পতিবার রাজধানীর কাকরাইলে রাজস্ব ভবন প্রাঙ্গণে আয়কর দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ইব্রাহিম হোসেন খান এনবিআর চেয়ারম্যানের হাতে এ স্বীকৃতির সনদপত্র তুলে দেন।
আয়কর দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন,
আমরা খোঁজ নিয়ে দেখেছি সারা পৃথিবীর কোথাও আয়কর পরিচয়পত্র প্রবর্তিত হয়নি। তখন আমাদের মাথায় আসলো এ কার্ড বাংলাদেশের একটি মৌলিক উদ্ভাবন।এটাকে কপিরাইট করা প্রয়োজন।ডিজাইনসহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে কপিরাইট অফিসে আমরা কাজ করেছি।
অত্যন্ত দ্রুততার সাথে এ কার্ডের ডিজাইন নিবন্ধন করার জন্য তিনি সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ও কপিরাইট অফিসকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশ যে এগিয়ে যাচ্ছে আয়কর পরিচয়পত্র তার একটি প্রমাণ।এটি এনবিআরের একটি বড় অর্জন।
এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন,আমরা গবেষণা করে দেখেছি পৃথিবীর কোথাও এ রকম ডেডিকেডেটে কার্ড দেওয়া হচ্ছে না। এজন্য সম্প্রতি অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রদূত কনফারেন্সে প্রত্যেক রাষ্ট্রদূতকে আমরা এ কার্ড দিয়েছি।তাদের মাধ্যমে এই কার্ড সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়বে বাঙালিদের ওয়ালেটে।
অনুষ্ঠানে অভিনেতা হাসান ইমামকে ‘কর বাহাদুর’ সম্মাননা প্রদান করা হয়।এ বিষয়ে নজিবুর রহমান বলেন,গর্বিত করদাতা হিসেবে কর বাহাদুর সম্মাননা হাসান ইমাম অর্জন করেছেন। করদাতাদের সম্মাননার মাধ্যমে আমরা সারাদেশে রাজস্ববান্ধব সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠা করছি।
কর বাহাদুর স্বীকৃতি দেয়ায় এনবিআরকে ধন্যবাদ জানিয়ে অভিনেতা হাসান ইমাম বলেন,আমরা মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে যে দেশ স্বাধীন করেছি, সেই দেশ আজ স্বনির্ভর হতে যাচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে গড়ে তুলতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।আমরা কর দিচ্ছি বলে করদাতার সংখ্যা বাড়ছে। আশা করবো অন্যান্য দেশের মতো যাদের কর দেয়ার কথা তারা সবাই কর দেবেন, এই দিন আর বেশি দূরে নয়।
অনুষ্ঠানে নাট্য ব্যক্তিত্ব সারা যাকের বলেন, খুশি হয়েই আমি কর দেই। দেশটা এগিয়ে যাবার মাধ্যমে প্রমাণ হয় যে আমরা কর দিচ্ছি। ১০-১৫ বছর আগে কর ফাঁকি দেয়ার একটা ক্যালচার ছিল। সেসময় কর আদায়ের পদ্ধতি এত উন্নত ছিল না।
শিল্পী ফাতেমা তুজ জোহুরা বলেন, করের মাধ্যমে দেশ ও ব্যক্তির আত্ম সম্মান বৃদ্ধি পায়।কর ফাঁকি দিলে নিজের সাথে প্রবঞ্চনা করা হয়।কর দেয়ার প্রক্রিয়া আগের চেয়ে অনেক সহজ হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব মো. ইব্রাহিম হোসেন খান বলেন,আজ এনবিআরের ইতিহাস সৃষ্টির দিন।এনবিআর প্রথমবারের মত ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ড প্রবর্তন করেছে।এ কার্ডের যে ডিজাইন তার একটি বিশেষত্ব আছে। যা কপিরাইটের অন্তর্ভূক্ত এবং এ কপিরাইটটি রেজিস্ট্রশন সম্পন্ন হয়েছে।এ রেজিস্ট্রেশন বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি মাইলফলক।
অনুষ্ঠানে অভিনেতা রিয়াজ, অমিত হাসান, মৌসুমী, শিল্পী রফিকুল আলম, অভিনেতা ওমর সানি, অপি করিম, বৃন্দাবন দাশ, বৃন্দাবনদাস খুশি, চঞ্চল চৌধুরী, জাহিদ হাসানসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গণের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। পরে তারা আয়কর দিবসের র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন।
পরে এনবিআর চেয়ারম্যান পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে আয়কর দিবসের উদ্বোধন করেন। চেয়ারম্যান খোলা জিপ, অভিনেতা-শিল্পী ও অতিথিরা ঘোড়ার গাড়ি এবং কর্মকর্তা-কর্মচারিরা ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে এতে অংশ নেন।